অনুগ্রহ করে অপেক্ষা করুন...
 

যামানার লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ, যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, ইমামুল আ’ইম্মাহ, মুহইস সুন্নাহ, ক্বাইয়্যুমুয্ যামান, কুতুবুল আলম, হুজ্জাতুল ইসলাম, সুলত্বানুল আউলিয়া ওয়াল মাশায়িখ, ছাহিবু সুলত্বানিন নাছীর,
মাহিউল বিদয়াহ, রসূলে নুমা, গাউছুল আ’যম, সাইয়্যিদুল আউলিয়া, ইমামুল উমাম, সাইয়্যিদুল খুলাফা, আস সাফফাহ, হাবীবুল্লাহ্, আওলাদে রসূল, রাজারবাগ শরীফ-এর মুর্শিদ ক্বিবলাহ
The Daily Al Ihsan
বিশ্বের সমস্ত দেশ থেকে পঠিত আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত এর
আক্বীদায় প্রতিষ্ঠিত একমাত্র আন্তর্জাতিক ইসলামী পত্রিকা
Arabic .  বাংলা .  Urdu .  English .  Japanese .  Swedish
২১ মাহে যিলক্বদ শরীফ, ১৪৩৭ হিজরী, ২৭ ছালিছ, ১৩৮৪ শামসি
২৫ আগস্ট, ২০১৬ ঈসায়ী সন, ১০ ভাদ্র, ১৪২৩ ফসলী সন
ইয়াওমুল খামীস (বৃহস্পতিবার)
al-ihsan al-ihsan al-ihsan
al-ihsan
মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার দোয়ার বরকতে মুসলমানদেরকে জুলুম নির্যাতন করার ফলে জুলুমবাজ কাফিরদের উপর খোদায়ী গজব
  • <font class='SlideCaptionBN'>ইতালির মধ্যাঞ্চলে ছয় দশমিক দুই মাত্রার একটি শক্তিশালী ভূমিকম্পে বহু লোক হতাহত হয়েছে। </font>
  • <font class='SlideCaptionBN'>শক্তিশালী এব ভূমিকম্পে বহু ভবন ধসে পড়ে লোকজন চাপা পড়ে আছে এবং মৃতের সংখ্যা অনেক হতে পারে </font>
  • <font class='SlideCaptionBN'>বলে ধারণা করা হচ্ছে। মুখপাত্র ইমাকোলাতা পসটিগ্লিওন জানায়, পার্বত্য এলাকার গ্রাম ও শহরগুলোতে </font>
  • <font class='SlideCaptionBN'>এ ভূমিকম্প হওয়ায় উদ্ধারকাজ করা খুব কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে।</font>
Al Baiyinaat : e Version Al Ihsan : e Version
সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ উপলক্ষে প্রকাশিত
পোষ্টার, স্ক্রিনসেভার, ওয়ালপেপার সমুহ ডাউনলোড করুন।
বিশ্বের সমস্ত দেশ ও শহর থেকে পঠিত
ইসলামী শরীয়ত সম্মত একমাত্র পত্রিকা
"দৈনিক আল ইহসান"

বিজ্ঞাপনের মুল্য তালিকা
নামাজের সময়সূচী
জেলা : ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকা
ওয়াক্তশুরুশেষ
সাহ্‌রীর শেষ সময়০৪:১৬
ফজর০৪:২১০৫:৩৬
ইশরাক০৬:০০০৭:২৫
চাশত্‌০৭:২৬১১:০১
জাওয়াল১২:০১যোহর নামায পড়ার পূর্ব পর্যন্ত
যোহর১২:০১০৪:৩৩
আছর০৪:৩৪০৬:০৫
মাগরিব০৬:২৮০৭:৪০
আওয়াবীনবাদ মাগরিব০৭:৪০
ইশা০৭:৪১০৪:১৬
তাহাজ্জুদ১১:২২০৪:১৬
আগামীকাল ফজর০৪:২১০৫:৩৬
আগামীকাল সূর্যোদয়০৫:৩৭-
আজ সূর্যোদয়০৫:৩৭-
আজ সূর্যাস্ত০৬:২৩-
সূত্র: গবেষণা কেন্দ্র- মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ, ঢাকা

 
Saieedul Aaiyad
Saieedul Aaiyad
Saieedul Aaiyad
RajarbagShareef.net
Radio 'Al-Hikmah'
Special Days in Islam
majlisu-ruiatil-hilal
International Voice Room
Noorun Alaa Noor
Donate for Daily Al Ihsan Shareef Donate for Daily Al Ihsan Shareef


» কোরআন শরীফের তরজমা ও তাফছির(তরজমায়ে মুজাদ্দিদে আজম)
» ফিক্বহুল হাদিস ওয়াল আছার
» আহ্‌লে সুন্নাত ওয়াল জামাতের আক্বীদা
» মারিফাতুছ ছাহাবা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম
» আউলীয়া-ই-কিরাম রহমতুল্লাহী আলাইহিম
 
» আত-তাক্বউইমুশ শামসি
» ইসলামের বিশেষ দিন সমূহ
» আহ্‌কামু রমাদ্বানাল মুবারক
» আহ্‌কামুয্‌যাকাত
(যাকাতের হুকুম-আহ্‌কাম)
» বিষয় ভিত্তিক বিশেষ প্রবন্ধ
 
» মাসিক আল বাইয়্যিনাত
» ওয়াজ শরীফ
» ক্বাছীদা আনজুমান
» মক্ববুল মুনাজাত শরীফ
» প্রকাশিত কিতাব সমূহ
 
» ফতওয়া বিভাগ
» সুওয়াল জাওয়াব বিভাগ
» মাসের ফজিলত ও প্রাসঙ্গিক আলোচনা
 
» পত্রিকার মূল সংস্করণ
 
» আপনার মতামত পাঠান
» আর্কাইভ থেকে পড়ুন
 
» সুন্নতি সামগ্রী
» কবিতা

 
মুজাদ্দিদে আ’যম হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম-উনার ক্বওল শরীফ
উম্মুল মু’মিনীন হযরত ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম তিনি বলেন- ‘নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি হযরত উম্মাহাতুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম উনাদের পক্ষ থেকে গরু কুরবানী করেছেন।’ সুবহানাল্লাহ!

মুসলমান উনাদের জন্য গরু কুরবানী করা ও গরুর গোশত খাওয়া খাছ সুন্নত মুবারক।

অথচ গো-পূজারী কাফির-মুশরিকদের খুদকুড়া দ্বারা লালিত পালিত এক শ্রেণীর কর্মকর্তাদের প্রচ্ছন্ন সহযোগিতায় মিডিয়ার মাধ্যমে করা হচ্ছে গরু কুরবানী ও গরুর গোশত বিরোধী অপপ্রচারণা। নাউযুবিল্লাহ!

সম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনার বিদ্বেষী ভারতের গো-রক্ষা আন্দোলনকারী এদেশীয় দালালদের স্পর্ধা শতকরা ৯৮ ভাগ মুসলমান উনাদের সহ্যের সীমা অতিক্রম করেছে।

অতএব, গরু কুরবানী বিরোধী কোনো প্রচারণা, পদক্ষেপ ও ষড়যন্ত্র এদেশের শতকরা ৯৮ ভাগ মুসলমান উনারা কখনোই বরদাশত করবেন না।
যাকাত দেয়ার উত্তম স্থান মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ
আপনাদের মতামত
হালাল হারাম নিয়ে নানা কথা (ফুড কালার)-২১
মুজাদ্দিদে আ’যম সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম উনার মকবুল মুনাজাত শরীফ উনার বেমেছাল রূহানীয়ত সমৃদ্ধ রোব মুবারক উনার ফলেই খোদায়ী গযবে পর্যুদস্ত বিশ্বের সকল কাফির-মুশরিকের দেশ
পবিত্র কুরআন শরীফ ও পবিত্র সুন্নাহ শরীফ উনাদের বিরোধী আইন না করে নির্বাচনী ওয়াদা রক্ষা করা সরকারের জন্য ফরয
কুরবানীর পশুর জন্য নির্ধারিত নতুন হাট বসাতে হবে, তবে কোনো হাটের বিকল্প হিসেবে নয়; নতুন হাট বৃদ্ধি হিসেবে করতে হবে
সিলেট তারাপুর জমির প্রকৃত ইতিহাস সাক্ষ্য দেয়- তারাপুরের মালিক দেবোত্তর সম্পত্তি নয়, মুসলমানদের সম্পত্তি, যা জনকল্যাণে কাজে লাগাচ্ছিলেন রাগীব আলী
অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় বটে
ফিরে আসো... ফিরে আসো...
পবিত্র কুরবানীর সময় বেশি দিন ছুটি প্রদান অর্থনৈতিকভাবেও লাভজনক
আক্বীদা বিশুদ্ধ না হলে তাদের দ্বারা পবিত্র কুরবানীর পশু জবাই করলে ও তাদেরকে চামড়া প্রদান করলে কুরবানী কবুল হবে না এবং গোশত খাওয়া হারাম হয়ে যাবে
পবিত্র কুরবানীর সময় কমপক্ষে ১০ দিন ছুটি দেয়া হোক
দেশের শাসকগোষ্ঠী কী বাদশাহ আকবরের মতো পবিত্র কুরবানী বন্ধ করে দিতে চায়? এবং পুনরায় দ্বীনি ইলাহী জারী করতে চায়
সম্পাদকীয়
সব প্রশংসা মুবারক খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার জন্য; যিনি সকল সার্বভৌম ক্ষমতার মালিক। সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, হযরত নবী আলাইহিমুস সালাম উনাদের নবী, হযরত রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদের রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার প্রতি অফুরন্ত পবিত্র দুরূদ শরীফ ও সালাম মুবারক। রাশিয়ার সাথে রুপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের জন্য গত ২৬শে জুলাই-২০১৬ ঈসায়ী তারখে ১ হাজার ১৩৮ কোটি ডলার বা প্রায় ৯১ হাজার কোটি টাকার ঋণ চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে। রূপপুুর বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য রাশিয়ার কাছ থেকে বাংলাদেশ সরকার ঋণ নিচ্ছে ১১ দশমিক ৩৮ বিলিয়ন ডলার। তবে এজন্য সুদে-আসলে রাশিয়াকে ফেরত দিতে হবে সর্বোচ্চ ২০ বিলিয়ন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় রাশিয়ার কাছ থেকে নেয়া ৯১ হাজার ৪০০ কোটি টাকার শুধু সুদ বাবদই সরকারকে ফেরত দিতে হবে ৬৯ হাজার ২৩২ কোটি টাকা। গত ইয়াওমুল ইছনাইনিল আযীম শরীফ বা সোমবার সন্ধ্যায় রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে রূপপুর পারমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় আয়োজিত সচিবদের অভিজ্ঞতা বিনিময় অনুষ্ঠানে এ কথা জানানো হয়। চুক্তির শর্ত অনুযায়ী ঋণের টাকা প্রদানের ১০ বছর পর থেকে ৩০ বছরের মধ্যে তা পরিশোধ করতে হবে। ২০২৭ সালের ১৫ মার্চ থেকে ঋণের কিস্তি দেয়া শুরু করতে হবে। প্রতিবছরের ১৫ মার্চ ও ১৫ সেপ্টেম্বর সমপরিমাণ কিস্তিতে ঋণ পরিশোধ করতে হবে। প্রসঙ্গত, রাশিয়ার ঋণ, প্রযুক্তি ও বিশেষজ্ঞ সহায়তার উপর নির্ভর করে বিপুল ব্যয়ে এই ঝুঁকিপূর্ণ প্রকল্প নিয়ে সচেতন মহলে বহুদিন ধরেই উদ্বেগ বিরাজ করছে। এই বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে আপত্তি মূলত ৪টি কারণে। প্রথমত, এর বিপুল ব্যয় ও অস্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় বারবার ব্যয়বৃদ্ধি। ২০০৯ সালে ৩০০ থেকে ৪০০ কোটি ডলার বা ২৪ হাজার থেকে ৩২ হাজার কোটি টাকার কথা বলা হলেও নির্মাণ শুরু হওয়ার আগেই কয়েক ধাপে ব্যয় বাড়িয়ে এখন পর্যন্ত ১ হাজার ২৬৫ কোটি ডলার বা ১ লক্ষ ১ হাজার ২০০ কোটি টাকায় নিয়ে আসা হয়েছে। এই ব্যয় আরো বাড়বে বলে ধারণা করা হচ্ছে। নিরপেক্ষ বিশেষজ্ঞদের মতে, বাংলাদেশের প্রতিনিধিরা সঠিকভাবে দরকষাকষি করতে না পারাতেই এই অতিরিক্ত ব্যয়। এখানেই আসে দ্বিতীয় আপত্তির কথা। পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ-পরিচালনায় অভিজ্ঞতাসম্পন্ন বিশেষজ্ঞ বা জনবল বাংলাদেশের নেই। তৃতীয় কোনো অভিজ্ঞ প্রতিষ্ঠানকে তত্ত্বাবধানের দায়িত্বও দেয়া হয়নি। ফলে সবকিছুর জন্য রাশিয়ান কোম্পানির উপরই নির্ভর করতে হচ্ছে। তৃতীয়ত, পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে কোনো দুর্ঘটনা হলে প্রলয়ঙ্করী ও দীর্ঘমেয়াদি ক্ষতি হয় মানুষ ও পরিবেশের। চেরনোবিল, থ্রি মাইল আইল্যান্ড কিংবা সাম্প্রতিক কুকুশিমা-এর মতো বড় বড় দুর্ঘটনাগুলো ঘটেছে প্রযুক্তির দিক দিয়ে শীর্ষে অবস্থানকারী দেশগুলোতে, যারা নিজস্ব দক্ষতাকে কেন্দ্র করে নিউক্লিয়ার বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করেছিল। কোনো দুর্ঘটনা না ঘটলেও পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে তেজষ্ক্রিয় দূষণের ঝুঁকি থাকে। উচ্চ সতর্কতা ও প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা যা অনুসরণ করা প্রয়োজন তা বাংলাদেশের মতো দেশে কড়াকড়িভাবে মেনে চলা হবে কিনা সে বিষয়ে সংশয় থাকা স্বাভাবিক। চতুর্থত, বিদ্যুৎকেন্দ্রে ব্যবহৃত কাঁচামাল ইউরেনিয়াম থেকে উৎপন্ন তেজষ্ক্রিয় বর্জ্য ১০ হাজার বছর পর্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ থাকে। বলা হচ্ছে- রাশিয়া এই বর্জ্য বাংলাদেশ থেকে নিয়ে যাবে। কিন্তু এই ধরনের কোনো সুনির্দিষ্ট চুক্তি এখনো স্বাক্ষর হয়নি। তাছাড়া বাংলাদেশ থেকে সুদূর রাশিয়ায় নিরাপদে এই বর্জ্য কিভাবে নিয়মিত পরিবহন করা হবে সে বিষয়েও রয়েছে অনিশ্চয়তা। এই বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে উৎপাদিত বিদ্যুতের দামও খুব কম হবে না। এই বিদ্যুৎ প্রকল্পের মূল চুক্তি সইয়ের পর জানানো হয়েছিল যে- প্রতি ইউনিটের দাম পড়বে সাড়ে ৫ টাকা। আবার বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি) হিসাবে রূপপুর কেন্দ্রে উৎপাদিত প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের দাম সাড়ে ৭ টাকা পর্যন্ত হতে পারে। ফলে পারমাণবিক বিদ্যুৎ নিরাপদ তো নয়ই, সস্তাও নয়। বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য গ্যাস-কয়লা-পানি-বায়ু প্রভৃতি বিপুল প্রাকৃতিক উৎস আমাদের দেশে আছে। পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের জটিল প্রক্রিয়া সম্পর্কে সম্যক জ্ঞান, দক্ষতা-অভিজ্ঞতা ও পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা আয়ত্ত করার আগে ঘনবসতিপূর্ণ বাংলাদেশে এই ঝুঁকিপূর্ণ ব্যয়বহুল প্রকল্প কেন? সঙ্গতকারণেই আমরা মনে করি, এর পেছনে একদিকে আছে শাসকদলের বাহবা নেয়ার প্রচেষ্টা, অন্যদিকে বিশাল বাজেটের এই প্রকল্প থেকে হয়তো অনেকের পকেটে মোটা অঙ্কের কমিশন জমা হবে। কিন্তু চরম ঝুঁকি ও হুমকির মুখে পড়বে জনগণ আর ঋণের বোঝা চাপবে দেশের ঘাড়ে। প্রসঙ্গত আমরা মনে করি, বিদ্যুৎ সঙ্কট সমাধানের জন্য জাতীয় প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে জনগণের স্বার্থ ও প্রাণ-প্রকৃতি-পরিবেশের গুরুত্ব মাথায় রেখে স্থালভাগে ও সমুদ্রের গ্যাস উত্তোলনের উদ্যোগ নেয়া হয়, যদি বিদ্যমান গ্যাসভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলো সংস্কার করে একই পরিমাণ গ্যাস থেকে দ্বিগুণ পরিমাণ বিদ্যুৎ উৎপাদনের সম্ভাবনাকে কাজে লাগানো হয়, গ্যাস ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়, যদি সৌরশক্তি-বায়ুশক্তি-বায়োগ্যাস ইত্যাদি নবায়ণযোগ্য জ্বালানি ব্যাবহারে জাতীয় সক্ষমতা তৈরির প্রকল্প হাতে নেয়া হয়, যদি এসব কাজে স্বচ্ছতা-জবাবদিহিতা-জনস্বার্থ নিশ্চিত করা হয়, তাহলেই সেসব প্রকল্প গ্রহণ করা যায়। কেবলমাত্র তখনই দেশের মালিক জনগণরা উপকৃত হবে- জনগণের স্বার্থে কাজ হবে একথা বলা যায়। মূলত, সব সমস্যা সমাধানে চাই সদিচ্ছা ও সততা। এই সততা ও সদিচ্ছা আসে পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ অনন্তকালব্যাপী পালন করার ইলম, চেতনা ও জজবা থেকে। আর তার জন্য চাই নেক ছোহবত তথা মুবারক ফয়েয-তাওয়াজ্জুহ। যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, যামানার মুজাদ্দিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার নেক ছোহবত মুবারকেই কেবলমাত্র সে মহান ও অমূল্য নিয়ামত হাছিল সম্ভব। আর ইতিহাসে তিনিই সর্বপ্রথম দিচ্ছেন অনন্তকালব্যাপী পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন করার মহামহিম নিয়ামত মুবারক। সুবহানাল্লাহ! খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি আমাদেরকে তা নছীব করুন। (আমীন)
বিশেষ প্রতিবেদন
দুর্নীতি বন্ধে প্রধানমন্ত্রীর অপারগতা প্রকাশ: সারাদেশে অবাধে চলছে ভুয়া প্রকল্প ও ভুয়া বিলের ছড়াছড়ি তথা সরকারি-বেসরকারি হাজার রকমের দুর্নীতি (২২০)
ফিরে দেখা ইতিহাস : ঘাতক রাজাকার, আল-বাদর মওদুদী জামাতী, দেওবন্দী খারিজী, ওহাবী সালাফীদের দিনলিপি ২৫ আগস্ট, ১৯৭১ ঈসায়ী
রাজাকার মালানা সুবহানের নির্দেশে ৪শ ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়-২
সন্ত্রাসবাদ ও বাংলাদেশ-৩
‘কুরবানীর পশুর হাট কমানো’ ‘জবাইকারীর বয়স ১৮ করা’ ‘জবাইর স্থান নির্দিষ্ট করা’- কুরবানী নিয়ে সরকারের এ পরিকল্পনাগুলোর একটিও কুরবানীর পক্ষে যায় না, ইসলামী শরীয়তও এর সমর্থন করে না জনগণেরও বুঝতে বাকি নেই- এগুলো যে কুরবানীর বিরুদ্ধেই পরিকল্পিত ও উদ্দেশ্যমূলক ষড়যন্ত্র
দেশের খবর
স্বয়ংক্রিয় যন্ত্রে পাটের আঁশ ছাড়ানো জনপ্রিয় করার আহবান
বৃষ্টির পানি সংরক্ষণ প্রকল্প: বদলেছে সোনাপাতিলা বিলের কৃষকদের ভাগ্য
পরিবহন হকারদের হয়রানি বন্ধের দাবি
কেরির সঙ্গে সব বিষয়ে কথা হবে -পররাষ্ট্রমন্ত্রী
বিকাশের মাধ্যমে প্রতারণা চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার
খালেদার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানায় বিএনপি’র উদ্বেগ
৬.৮ মাত্রার ভূমিকম্পে কাঁপলো বাংলাদেশ : মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার উসীলায় ফের রক্ষা পেলো দেশ ॥ * মিয়ানমারে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি
বিএনপি’র চরিত্রের কোনো বদল হয়নি -প্রধানমন্ত্রী
জেএমবি’র ভারপ্রাপ্ত কমান্ডারসহ আটক ৫
ভবদহের কান্না: ১০ দিনে প্রাণ গেল ১৬ জনের
রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র গণবিরোধী- জনস্বার্থবিরোধী সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দিচ্ছে সরকার -খালেদা
মীর কাসেমের রিভিউ আবেদন শুনানি রোববার পর্যন্ত মুলতবি
যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল স্থানান্তর নিয়ে চিন্তার কিছু নেই -অ্যাটর্নি জেনারেল
যানজটে নাকাল রাজধানীবাসী
দেশী তেলাপিয়া ১০০% নিরাপদ -গবেষণা
বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন আজ্ঞাবহ ‘পুতুল’ -আনু মোহাম্মদ
নিষিদ্ধ হচ্ছে আনসার আল ইসলাম
দেশে সন্ত্রাসবাদ জন্ম দিয়েছে বিএনপি-জামাত -খাদ্যমন্ত্রী
এপ্রিল-জুন প্রান্তিকে রেমিট্যান্সের প্রবাহ বেড়েছে
অর্থবছরের ১ম মাসে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা অতিক্রম
৪৮ বছর পর শমশেরনগর থেকে উড়বে বিমান
ক্রয় কমিটিতে ৫ প্রস্তাব অনুমোদন
বাংলাদেশের অর্থনীতিতে পবিত্র কুরবানীর অবদান সর্বোচ্চ
বঙ্গবন্ধু হত্যার নেপথ্যের শক্তি চিহ্নিত করতে ‘কমিশন’ গঠন করতে হবে -মেনন
রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কে প্রতিশ্রুত প্রকল্প বাস্তবায়নের তাগিদ
লোডশেডিং-এর প্রতিবাদে হারিকেন হাতে মানববন্ধন
হাসনাতের জামিন আবেদন নাকচ
ছিন্নমূলদের তালিকা করে আবাসনের ব্যবস্থা করা হবে -মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী
ফারাক্কার সবগেট খুলে দিয়েছে ভারত, বন্যার আশঙ্কা
Anjuman-e Al Baiyinaat, Sweden
কবিতা






For the satisfaction of Mamduh Hazrat Murshid Qeebla Alaihis Salam
Site designed & developed by Muhammad Shohel Iqbal