অনুগ্রহ করে অপেক্ষা করুন...
 

যামানার লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ, যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, ইমামুল আ’ইম্মাহ, মুহইস সুন্নাহ, ক্বাইয়্যুমুয্ যামান, কুতুবুল আলম, হুজ্জাতুল ইসলাম, সুলত্বানুল আউলিয়া ওয়াল মাশায়িখ, ছাহিবু সুলত্বানিন নাছীর,
মাহিউল বিদয়াহ, রসূলে নুমা, গাউছুল আ’যম, সাইয়্যিদুল আউলিয়া, ইমামুল উমাম, সাইয়্যিদুল খুলাফা, আস সাফফাহ, হাবীবুল্লাহ্, আওলাদে রসূল, রাজারবাগ শরীফ-এর মুর্শিদ ক্বিবলাহ
The Daily Al Ihsan
বিশ্বের সমস্ত দেশ থেকে পঠিত আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত এর
আক্বীদায় প্রতিষ্ঠিত একমাত্র আন্তর্জাতিক ইসলামী পত্রিকা
Arabic .  বাংলা .  Urdu .  English .  Japanese .  Swedish
১ মাহে মুহররমুল হারাম, ১৪৩৬ হিজরী, ২৭ খমিছ, ১৩৮২ শামসি
২৬ অক্টোবর, ২০১৪ ঈসায়ী সন, ১১ কার্তিক, ১৪২১ ফসলী সন
ইয়াওমুল আহাদি (রোববার)
al-ihsan al-ihsan al-ihsan
al-ihsan
মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার দোয়ার বরকতে মুসলমানদেরকে জুলুম নির্যাতন করার ফলে জুলুমবাজ কাফিরদের উপর খোদায়ী গজব
  • <font class='SlideCaptionBN'>কানাডার পশ্চিমাঞ্চলের দিকে অগ্রসর হচ্ছে ঝড় ‘এ্যানো’।</font>
  • <font class='SlideCaptionBN'>যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে শক্তিশালী টর্নেডোর আঘাতে ল-ভ- হয়ে যায় বহু এলাকা।</font>
  • <font class='SlideCaptionBN'>অস্ট্রিয়াতে শীতের শুরুতেই প্রবল তুষারপাত শুরু হয়েছে।</font>
Al Baiyinaat : e Version Al Ihsan : e Version
সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ উপলক্ষে প্রকাশিত
পোষ্টার, স্ক্রিনসেভার, ওয়ালপেপার সমুহ ডাউনলোড করুন।
বিশ্বের সমস্ত দেশ ও শহর থেকে পঠিত
ইসলামী শরীয়ত সম্মত একমাত্র পত্রিকা
"দৈনিক আল ইহসান"

বিজ্ঞাপনের মুল্য তালিকা
নামাজের সময়সূচী
জেলা : ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকা
ওয়াক্তশুরুশেষ
সাহ্‌রীর শেষ সময়০৪:৪০
ফজর০৪:৪৫০৫:৫৮
ইশরাক০৬:২২০৭:৩৪
চাশত্‌০৭:৩৫১০:৪২
জাওয়াল১১:৪৩যোহর নামায পড়ার পূর্ব পর্যন্ত
যোহর১১:৪৩০৩:৪৮
আছর০৩:৪৯০৫:০৮
মাগরিব০৫:৩১০৬:৪০
আওয়াবীনবাদ মাগরিব০৬:৪০
ইশা০৬:৪১০৪:৪০
তাহাজ্জুদ১১:০৫০৪:৪০
আগামীকাল ফজর০৪:৪৫০৫:৫৯
আগামীকাল সূর্যোদয়০৬:০০-
আজ সূর্যোদয়০৫:৫৯-
আজ সূর্যাস্ত০৫:২৬-
সূত্র: গবেষণা কেন্দ্র- মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ, ঢাকা

 
Saieedul Aaiyad
Saieedul Aaiyad
Saieedul Aaiyad
RajarbagShareef.net
Radio 'Al-Hikmah'
Special Days in Islam
majlisu-ruiatil-hilal
International Voice Room
Noorun Alaa Noor
Donate for Daily Al Ihsan Shareef Donate for Daily Al Ihsan Shareef


» কোরআন শরীফের তরজমা ও তাফছির(তরজমায়ে মুজাদ্দিদে আজম)
» ফিক্বহুল হাদিস ওয়াল আছার
» আহ্‌লে সুন্নাত ওয়াল জামাতের আক্বীদা
» মারিফাতুছ ছাহাবা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম
» আউলীয়া-ই-কিরাম রহমতুল্লাহী আলাইহিম
 
» আত-তাক্বউইমুশ শামসি
» ইসলামের বিশেষ দিন সমূহ
» আহ্‌কামু রমাদ্বানাল মুবারক
» আহ্‌কামুয্‌যাকাত
(যাকাতের হুকুম-আহ্‌কাম)
» বিষয় ভিত্তিক বিশেষ প্রবন্ধ
 
» মাসিক আল বাইয়্যিনাত
» ওয়াজ শরীফ
» ক্বাছীদা আনজুমান
» মক্ববুল মুনাজাত শরীফ
» প্রকাশিত কিতাব সমূহ
 
» ফতওয়া বিভাগ
» সুওয়াল জাওয়াব বিভাগ
» মাসের ফজিলত ও প্রাসঙ্গিক আলোচনা
 
» পত্রিকার মূল সংস্করণ
 
» আপনার মতামত পাঠান
» আর্কাইভ থেকে পড়ুন
 
» সুন্নতি সামগ্রী
» কবিতা
» সবুজ বাংলা ব্লগ

 
মুজাদ্দিদে আ’যম হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম-উনার ক্বওল শরীফ
আখিরী রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘প্রত্যেক হযরত নবী আলাইহিস সালাম উনার জান্নাতে একজন বন্ধু থাকবেন। আর জান্নাতে আমার বন্ধু হবেন সাইয়্যিদুনা হযরত উছমান যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম।’
আজ সুমহান ঐতিহাসিক পবিত্র পহেলা মুহররমুল হারাম শরীফ-
খলীফায়ে ছালিছ, আমীরুল মু’মিনীন সাইয়্যিদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার সম্মানিত খিলাফত মুবারক উনার দায়িত্ব গ্রহণের সুমহান দিন।
তাই প্রত্যেক মুসলমান পুরুষ-মহিলা সকলের জন্য দায়িত্ব ও কর্তব্য হচ্ছে- এ ঐতিহাসিক সুমহান দিবস উপলক্ষে পবিত্র মীলাদ শরীফ, পবিত্র ক্বিয়াম শরীফ, পবিত্র ওয়াজ শরীফ উনার মাহফিলের আয়োজন করে উনার পবিত্র সাওয়ানেহে উমরী মুবারক আলোচনা করা।
আর সরকারের জন্য দায়িত্ব ও কর্তব্য হচ্ছে- উনার সম্মানিত খিলাফত পরিচালনার বিষয়টিসহ পবিত্র সাওয়ানেহে উমরী মুবারক প্রত্যেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সিলেবাসে অন্তর্ভুক্ত করার পাশাপাশি এ মুবারক দিনটি উদযাপনে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা।
আপনাদের মতামত
সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাস্সাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বেমেছাল সম্মানিত খিদমত মুবারক-এ সাইয়্যিদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম
আল হাদিউ, আলুল্লাহি, আকরামুল উম্মাতি, ছালিছুল ক্বওমী, খলীফায়ে ছালিছ, আমীরুল মু’মিনীন হযরত উছমান যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার সুমহান শান-মান
আল মুহমিনু, আছ ছালিহু, নাশিরুল কুরআন, খলীফায়ে ছালিছ, খলীফাতুল মুসলিমীন, আমিরুল মু’মিনীন, সাইয়্যিদুনা হযরত উছমান যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার কিছু নছীহত মুবারক
‘দান করলে সম্পদ কমে না’ এই পবিত্র হাদীছ শরীফ উনার পরিপূর্ণ মিছদাক হলেন আল মুতাছদ্দিক্ব আল আউওয়ালু, খাইরি উম্মাতি, আর রাশিদু, আছ ছাদিকু, খলীফায়ে ছালিছ, আমিরুল মু’মিনীন, সাইয়্যিদুনা হযরত উছমান যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম তিনি
খলীফায়ে ছালিছ, আমিরুল মুমিনীন সাইয়্যিদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার নৌবাহিনী গঠন এবং বিজিত এলাকার সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
আশ শাহীদু, আল জাওওয়াদু, যুল হিজরাতাইন, মাহবুবুল্লাহি সাইয়্যিদুনা হযরত উছমান যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার দানের কারণে মহান আল্লাহ পাক তিনি বেহেশতে মেহমানদারীর আয়োজন করেন। সুবহানাল্লাহ!
ছহিবুত তাক্বওয়া, ছহিবুল ঈমান, কারিহুল কুফরী, আস সাবিকু খলীফাতুল মুসলিমীন, আমীরুল মু’মিনীন সাইয়্যিদুনা হযরত উছমান যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার খলীফা মনোনীত হওয়ার সঠিক ইতিহাস
সম্পাদকীয়
সমস্ত প্রশংসা মুবারক খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার জন্য; যিনি সকল সার্বভৌম ক্ষমতার মালিক। সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নবী আলাইহিমুস সালাম উনাদের নবী, রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদের রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার প্রতি অফুরন্ত পবিত্র দুরূদ শরীফ ও সালাম মুবারক।
আজ পহেলা মুহররমুল হারাম শরীফ। ১৪৩৬ হিজরী সালের প্রথম দিন। আজকের দিনের উপর ভিত্তি করেই গণনা হবে পবিত্র আশূরা মিনাল মুহররম শরীফ উনার দিন। কিন্তু কোনো পত্রিকাই নিউজ করেনি যে আজ পহেলা মুহররম শরীফ এবং আগামী ০৬ সাদিস ১৩৮২ শামসী (০৪ নভেম্বর ২০১৪ ঈসায়ী), ইয়াওমুছ ছুলাছা বা মঙ্গলবার পবিত্র আশূরা মিনাল মুহররম শরীফ উনার সুমহান দিন। অর্থাৎ বলা চলে মুসলমানগণ উনারা নিজেদের দ্বীন, ঐতিহ্য সবকিছু ভুলে আছে। সম্মানিত ইসলামী অনুষঙ্গগুলো মুসলমানগণ উনাদের মাঝে আলোচিত হয় না। রাষ্ট্রদ্বীন পবিত্র ইসলাম উনার দেশে পবিত্র ইসলামী বিষয়ে কোনো রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতা নেই। সম্মানিত ইসলামী শিক্ষার প্রসারে কোনো পদক্ষেপ নেই। জনগণের মাঝে পবিত্র ইসলামী চেতনা ছড়িয়ে দেয়ার কোনো মানসিকতা নেই। অথচ হারাম জন্মনিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি প্রচার-প্রসারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে, পাঠ্যক্রমে, বাজারে, হাটে-ঘাটে, পত্রিকায়, টিভি চ্যানেলে বিস্তর প্রচারণা চালানো হয়। শুধু এই এক হারাম নয় খেলাধুলা, গান-বাজনাসহ হাজারো হারামের প্রচার-প্রসার সরকারে ও রাষ্ট্র যন্ত্রের ব্যাপক পৃষ্ঠপোষকতা। নাঊযুবিল্লাহ! এই কী রাষ্ট্রদ্বীন পবিত্র ইসলাম উনার নমুনা? রাষ্ট্র নিজেই রাষ্ট্রদ্বীন পবিত্র ইসলাম উনাকে উপহাস করছে। অবহেলা করছে। অবমাননা করছে। যা এদশের ৯৭ ভাগ জনগোষ্ঠী মুসলমান উনাদের বরদাশতের বাইরে।
প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এদশের ৯৭ ভাগ জনগোষ্ঠী মুসলমান উনারা হতাশ হন, যখন দেখেন আজ পহেলা মুহররম শরীফ- খলীফায়ে ছালীছ, আমীরুল মু’মিনীন খলীফাতুল মুসলিমীন, সাইয়্যিদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার সম্মানিত খিলাফত মুবারক পরিচলনার মহান দায়িত্ব গ্রহণের সুমহান দিনটি সম্পূর্ণ অজ্ঞতা, অবহেলা ও অনাদরে অতিবাহিত হয়। অথচ এদেশে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস, প্রধানমন্ত্রীর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসসহ রাজনৈতিক, সামাজিক পাঁচশ’রও বেশি দিবস পালন করা হয়।
উল্লেখ্য, আজ দেশ-জাতি এমন একটা ক্রান্তিকাল পার করছে, যখন খলীফায়ে ছালিছ, খলীফাতুল মুসলিমীন, আমীরুল মু’মিনীন সাইয়্যিদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার পবিত্র খিলাফতকালের আলোচনা, মূল্যায়ন, অনুসরণ-অনুকরণ খুব জরুরী।
খলীফায়ে ছালিছ সাইয়্যদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার প্রায় ১২ (বারো) বৎসরের খিলাফতকালে সম্মানিত খিলাফতের পরিধি বহুদূর সম্প্রসারিত হয় এবং উহার সীমানা সিন্ধু হতে স্পেন পর্যন্ত বিস্তৃত হয়ে পড়ে। মুসলমান বাহিনী তখন বড় বড় জিহাদে অংশ গ্রহণ করা ছাড়াও নৌশক্তিতে অত্যন্ত সফলতার পরিচয় দেন এবং সাইপ্রাস ও রোড্স দ্বীপদ্বয় জয় করেন। এতদুদ্দেশ্যে একটি নিয়মিত বৃহৎ নৌবাহিনী গঠন করা হয়। হযরত মুয়াবিয়া রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু সমুদ্র পথে এতদূর অগ্রসর হন যে, ৩২ হিজরী সনে তিনি কনস্টান্টিনোপল পর্যন্ত গিয়ে পৌঁছেন। (আল-বিদায়া ওয়াল নিহায়া)
এ দৃষ্টিকোণ হতে বলা যায় যে, সাইয়্যদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার গোটা খিলাফতকাল মুসলমানগণ উনাদের বিজয় ও সফলতার যুগ।
এ সময় দু’ধরনের বিজয় অনুষ্ঠিত হয়। প্রথমতঃ সেসব প্রদেশ, যা সাইয়্যদুনা হযরত ফারূক্বে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার যুগেই বিজিত হয়েছিল কিন্তু রোমক ও ইরানীদের উস্কানীতে ফিতনা শুরু হয়েছিল, সাইয়্যদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার যুগে পুনরায় সেগুলি বিজয় করে শান্তি-শৃঙ্খলা স্থাপন করা হয়। দ্বিতীয়তঃ অনেক দেশ- যা সাইয়্যদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার খিলাফতকালেই বিজিত হয়। যেমন- লিবিয়া, তিউনিসিয়া, আলজেরিয়া, মরক্কো, জুরজান, খুরাসান, তাবারিস্তান, সোয়াত, কাবুল, সিজিস্তান, নিশাপুর ইত্যাদি।
সমুদ্রপথে বিজয়ের সূচনা সাইয়্যদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার সুমহান খিলাফতের এক আযীমুশ্ শান কৃতিত্ব। এই সময় মুসলমানগণ প্রায় ৫০টির মতো জিহাদে অংশ গ্রহণ করেন। উনাদের নৌশক্তি এত উন্নতি লাভ করেছিল যে, ৩১ হিজরী সনে রোমক সম্রাট যখন বিরাট বাহিনীর সহায়তায় সিরিয়ার উপকূল আক্রমণ করে, তখন হজরত মুয়াবিয়া রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু এবং হযরত আবদুল্লাহ ইবনে সা’দ রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনারা তাকে এমন শোচনীয়ভাবে পরাস্ত করেন যে, রোমকরা আর কখনো মাথা উঁচূ করে দাঁড়াবার সাহস পায়নি। তাদের বাহিনী সম্পূর্ণরূপে পর্যুদস্ত ও বিধ্বস্ত হয়ে যায়। সুবহানাল্লাহ!
এ সময় মুসলমানগণ ভারতবর্ষের প্রতিও নজর দেন এবং গুজরাটের উপকূলীয় অঞ্চলগুলি করায়ত্ত করেন।
এই সকল বিজয় মাত্র ছয় বৎসরেরও কম সময়ে অর্জিত হয়। ইহা হতেই সাইয়্যদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার অসামান্য রাজনৈতিক দূরদর্শিতা এবং অকৃত্রিম দ্বীনি খিদমতের পরিচয় পাওয়া যায়।
খলীফায়ে ছালিছ সাইয়্যদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার আর একটি গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখযোগ্য খিদমত পবিত্র মসজিদুল হারাম শরীফ উনার সীমানা সম্প্রসারণ, যা ২৬ হিজরী সনে সংঘটিত হয়। এ সম্প্রসারণের উদ্দেশ্যে তিনি আশে-পাশের জমি ক্রয় করে পবিত্র মসজিদুল হারাম শরীফ উনার এরিয়ার মধ্যে শামিল করে দেন। আর ২৯ হিজরী সনে তিনি পবিত্র মসজিদে নববী শরীফ উনার পুনঃনির্মাণ ও সম্প্রসারণ করেন। এ কাজে পূর্ণ দশ মাস সময় ব্যয় হয়। সুবহানাল্লাহ !
সাইয়্যদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার খিলাফত আমলের সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ ও আযীমুশ শান কৃতিত্ব হচ্ছে ইসলামী বিশ্বের সকল মুসলমানকে একই মাছহাফ (পবিত্র কুরআন শরীফ) ও একই কিরাতের উপর একত্র করা। মূলত, গোটা মুসলিম বিশ্বকে একই পতাকার ছায়াতলে সন্নিবিষ্ট করা তথা মুসলমানদের দ্বিধাবিভক্ত না করা, তাদের মধ্যে রক্তপাত না ঘটানো ছিল উনার বিশেষ শান।
তাই শক্তিবল, অস্ত্রবল, অর্থবল, রূহানী ইজাজত ও সর্বোচ্চ নিসবত মুবারক থাকার পরও কেবলমাত্র পবিত্র মদীনা মুনাওয়ারা মুবারক রক্তাক্ত হবে, মুসলমানদের মধ্যে হানাহানি হবে- এই আশঙ্কায় উনি আত্মরক্ষার জিহাদ না করে নিজে পবিত্র শাহাদত শরীফ গ্রহণ করলেন। খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার ও উনার হাবীব নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের হাক্বীক্বী রেযামন্দি ও সন্তুষ্টি মুবারক হাছিলের লক্ষ্যে এবং মুসলমান উনাদের ঈমান ও আমল হিফাযতের স্বার্থে তিনি নিজের জীবন দিয়ে দিলেন। কিন্তু আজ জনস্বার্থে আমাদের শীর্ষ রাজনৈতিক নেতারা আলোচনায় পর্যন্ত বসতে রাজি না। উল্টো তারা দিচ্ছে সহিংস ও উস্কানিমূলক আন্দোলন। চলছে উস্কানিমূলক বাক্যবাণ। চলছে গুপ্ত হত্যা, অপহরণ। ঘটছে অজস্র প্রাণহানি। দেশের অর্থনীতি বিপর্যস্ত এবং ধ্বংস। কেউ কারো অবস্থান থেকে বিন্দুমাত্র ছাড় দিতে রাজি নয়। প্রত্যেকেই ক্ষমতাকেই কুক্ষিগত দেখতে চায়।
জনস্বার্থ, জনসেবা, জনগণ এখানে চরমভাবে উপেক্ষিত। প্রতারিত, প্রবঞ্চিত, নিষ্পেষিত। কিন্তু তারপরেও জনগণের নামেই চলছে সরকার। জনস্বার্থ রক্ষার নামেই চলছে বিরোধী দলের আন্দোলন, নাশকতা তথা সহিংসতা। জনগণ এখানে গিনিপিগ, জনগণ এখানে শোষণের বস্তু। জনগণ এখানে ধোঁকার পাত্র।
পাকিস্তান জন্মের পরেও জনগণ ধোঁকা খেয়ে আসছে। স্বাধীনতার ৪৩ বছর পরে এই ধোঁকা শুধু স্বজাতীয় হয়নি, বরং আরো সবিশেষ বিস্তার লাভ করেছে। নাঊযুবিল্লাহ!
জনগণ নিরীহ। কিন্তু নিরীহ মানে কী মজলুম হওয়া? পবিত্র দ্বীন ইসলাম তো মজলুম হওয়াকে স্বীকৃতি দেয়নি। পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে, “তোমরা যালিমও হয়ো না, মজলুমও হয়ো না।”
কাজেই নিরীহ, ভদ্র থাকা যাবে কিন্তু মজলুম হওয়া যাবে না। এই শিক্ষা দেশের নামধারী আলিম সমাজ অথবা উলামায়ে ‘সূ’ কেউই এ যাবৎ বিন্দুমাত্র প্রচার করেনি। কিন্তু যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম তিনি খোদায়ী মুবারক জবানে তা ঘোষণা মুবারক করছেন। কাজেই নিরীহ, নিপীড়িত, নিষ্পেষিত, মজলুম জনগণের এখন সুযোগ এসেছে জেগে উঠার। জনবিরোধী, জনশোষক, জননিষ্পেষণকারী হারাম হরতাল, ভোট, নির্বাচন ও গণতন্ত্র বর্জন করার।
আজ পবিত্র পহেলা মুহররম শরীফ খলীফায়ে ছালিছ, আমীরুল মু’মিনীন, খলীফাতুল মুসলিমীন, সাইয়্যিদুনা হযরত যুন নূরাইন আলাইহিস সালাম উনার সম্মানিত খিলাফত মুবারক পরিচালনার মহান দায়িত্ব মুবারক গ্রহণের সুমহান দিনে এদেশের ৯৭ ভাগ জনগোষ্ঠী মুসলমান উনাদের মাঝে এই চেতনা বিস্তার লাভ করুক। এই জজবা ও সহীহ বুঝ জেগে উঠুক।
মূলত, এসব অনুভূতি ও দায়িত্ববোধ আসে পবিত্র ঈমান ও পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনাদের অনুভূতি ও প্রজ্ঞা থেকে। আর তার জন্য চাই নেক ছোহবত তথা মুবারক ফয়েজ-তাওয়াজ্জুহ।
যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, যামানার মুজাদ্দিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার নেক ছোহবত মুবারকে সে মহান ও অমূল্য নিয়ামত মুবারক হাছিল সম্ভব। খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি আমাদেরকে তা নছীব করুন। (আমীন)
দেশের খবর
গো’আযমের মৃত্যুতে ফখরুলদের বুকে চাপা কান্না - কামরুল ইসলাম
আলালসহ বিএনপি’র অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী আটক
কর্ণফুলী ইপিজেড থেকে বিদেশি মদ উদ্ধার
পানি শোধানাগার প্রকল্পে বিনিয়োগ করতে আগ্রহী চীন
গো’আযমের জানাজায় ছিলো না জামাতের আমির-সেক্রেটারি
মৌলভীবাজারের আকবরপুরে সম্ভাবনাময় মাল্টা চাষ
ভারতীয়দের উৎপাতে অসহায় দেশি জেলেরা
সরকার দেশ-বিদেশে সমাদৃত -কৃষিমন্ত্রী
কমিউনিস্টরা আওয়ামী লীগের ঘাড়ে সওয়ার! -মোয়াজ্জেম
ট্যানারি স্থানান্তরে ব্যর্থ হলে হাজারীবাগের সব কারখানা বন্ধ করে দেয়া হবে : শিল্পমন্ত্রী
কৃষকরা হচ্ছেন দেশের অর্থনীতির প্রধান চালিকাশক্তি -মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী
পবিত্র মুর্হরমুল হারাম শরীফ উনার চাঁদ দেখা গেছে ॥ ৬ সাদিস ১৩৮২ শামসী, ০৪ নভেম্বর ২০১৪ ঈসায়ী
ইয়াওমুছ ছুলাছা বা মঙ্গলবার পবিত্র আশূরা শরীফ
জামাতের সঙ্গে সম্পর্ক ‘নির্বাচনী সমঝোতা’ - খালেদা জিয়া
বেশি প্রাণহানি সড়ক দুর্ঘটনায়
প্রতিদিন গড়ে আত্মহত্যা করছে ২৯ জন
গো’আযমের কফিনে জুতা
হরতাল অনর্থক - অর্থমন্ত্রী
বঙ্গবন্ধুর আদর্শ হাসিনার মধ্যে নেই -ফকরুল
‘সংলাপের আহ্বানকে দুর্বল ভাবার কারণ নাই’
সরকার অজানা আতঙ্কে গ্রেপ্তার - রিজভী
‘মুক্তিযোদ্ধারা মাদক ও জুয়ার ব্যবসা করলে ব্যবস্থা’
হেক্সাকপ্টার, অক্টোকপ্টারের পর শাবির মিলিটারি ড্রোন!
গো’আযমের জানাজায়ও নেই বিএনপি
সন্ত্রাসবাদীদের নতুন প্ল্যাটফর্ম ‘বাংলাদেশ জিহাদী গ্রুপ’!
আবুধাবিতে প্রধানমন্ত্রী
উত্তরাঞ্চলে শীতের আমেজ
এ বছরই পদ্মা সেতুর কাজ শুরু হবে - আইনমন্ত্রী
টাকার জন্য সবাই রাজনীতিতে আসছে - আকবর আলী
‘গাড়ির ফিটনেস নেই, ডাম্পিংয়ে কত পাঠাবো’
অনিয়ম পাওয়া গেলে কঠোর ব্যবস্থা -গভর্ণর
হরতালে গাড়ি চালাবে মালিক সমিতি
Anjuman-e Al Baiyinaat, Sweden






For the satisfaction of Mamduh Hazrat Murshid Qeebla Alaihis Salam
Site designed & developed by Muhammad Shohel Iqbal