অনুগ্রহ করে অপেক্ষা করুন...
 

যামানার লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ, যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, ইমামুল আ’ইম্মাহ, মুহইস সুন্নাহ, ক্বাইয়্যুমুয্ যামান, কুতুবুল আলম, হুজ্জাতুল ইসলাম, সুলত্বানুল আউলিয়া ওয়াল মাশায়িখ, ছাহিবু সুলত্বানিন নাছীর,
মাহিউল বিদয়াহ, রসূলে নুমা, গাউছুল আ’যম, সাইয়্যিদুল আউলিয়া, ইমামুল উমাম, সাইয়্যিদুল খুলাফা, আস সাফফাহ, হাবীবুল্লাহ্, আওলাদে রসূল, রাজারবাগ শরীফ-এর মুর্শিদ ক্বিবলাহ
The Daily Al Ihsan
বিশ্বের সমস্ত দেশ থেকে পঠিত আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত এর
আক্বীদায় প্রতিষ্ঠিত একমাত্র আন্তর্জাতিক ইসলামী পত্রিকা
Arabic .  বাংলা .  Urdu .  English .  Japanese .  Swedish
২৩ মাহে রমাদ্বান, ১৪৩৫ হিজরী, ২৩ সানী, ১৩৮২ শামসি
২২ জুলাই, ২০১৪ ঈসায়ী সন, ৭ শ্রাবন, ১৪২১ ফসলী সন
ইয়াওমুছ ছুলাছায়ি (মঙ্গলবার)
al-ihsan al-ihsan al-ihsan
al-ihsan
মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার দোয়ার বরকতে মুসলমানদেরকে জুলুম নির্যাতন করার ফলে জুলুমবাজ কাফিরদের উপর খোদায়ী গজব
  • <font class='SlideCaptionBN'>ফিলিপাইনকে বিধ্বস্ত করে চীন ও ভিয়েতনামে আঘাত হানতে যাচ্ছে সুপার টাইফুন রামাসান। </font>
  • <font class='SlideCaptionBN'>উল্লেখ্য, চীনে গত এক সপ্তাহ ধরে চলমান প্রবল বর্ষণে </font>
  • <font class='SlideCaptionBN'>সৃষ্ট ভয়াবহ বন্যা ও ভূমিধসে দেশটিতে প্রায় ১০ লোক গৃহহীন হয়ে পড়েছে। </font>
Al Baiyinaat : e Version Al Ihsan : e Version
সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ উপলক্ষে প্রকাশিত
পোষ্টার, স্ক্রিনসেভার, ওয়ালপেপার সমুহ ডাউনলোড করুন।
বিশ্বের সমস্ত দেশ ও শহর থেকে পঠিত
ইসলামী শরীয়ত সম্মত একমাত্র পত্রিকা
"দৈনিক আল ইহসান"

বিজ্ঞাপনের মুল্য তালিকা
নামাজের সময়সূচী
জেলা : ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকা
ওয়াক্তশুরুশেষ
সাহ্‌রীর শেষ সময়০৩:৫৩
ফজর০৩:৫৭০৫:১৯
ইশরাক০৫:৪৩০৭:২০
চাশত্‌০৭:২১১১:০৫
জাওয়াল১২:০৫যোহর নামায পড়ার পূর্ব পর্যন্ত
যোহর১২:০৫০৪:৪৪
আছর০৪:৪৫০৬:৩১
মাগরিব০৬:৫৩০৮:১৩
আওয়াবীনবাদ মাগরিব০৮:১৩
ইশা০৮:১৪০৩:৫৩
তাহাজ্জুদ১১:২৩০৩:৫৩
আগামীকাল ফজর০৩:৫৮০৫:২০
আগামীকাল সূর্যোদয়০৫:২১-
আজ সূর্যোদয়০৫:২০-
আজ সূর্যাস্ত০৬:৪৮-
সূত্র: গবেষণা কেন্দ্র- মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ, ঢাকা

 
Saieedul Aaiyad
Saieedul Aaiyad
Saieedul Aaiyad
RajarbagShareef.net
Radio 'Al-Hikmah'
Special Days in Islam
majlisu-ruiatil-hilal
International Voice Room
Noorun Alaa Noor
Donate for Daily Al Ihsan Shareef Donate for Daily Al Ihsan Shareef


» কোরআন শরীফের তরজমা ও তাফছির(তরজমায়ে মুজাদ্দিদে আজম)
» ফিক্বহুল হাদিস ওয়াল আছার
» আহ্‌লে সুন্নাত ওয়াল জামাতের আক্বীদা
» মারিফাতুছ ছাহাবা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম
» আউলীয়া-ই-কিরাম রহমতুল্লাহী আলাইহিম
 
» আত-তাক্বউইমুশ শামসি
» ইসলামের বিশেষ দিন সমূহ
» আহ্‌কামু রমাদ্বানাল মুবারক
» আহ্‌কামুয্‌যাকাত
(যাকাতের হুকুম-আহ্‌কাম)
» বিষয় ভিত্তিক বিশেষ প্রবন্ধ
 
» মাসিক আল বাইয়্যিনাত
» ওয়াজ শরীফ
» ক্বাছীদা আনজুমান
» মক্ববুল মুনাজাত শরীফ
» প্রকাশিত কিতাব সমূহ
 
» ফতওয়া বিভাগ
» সুওয়াল জাওয়াব বিভাগ
» মাসের ফজিলত ও প্রাসঙ্গিক আলোচনা
 
» পত্রিকার মূল সংস্করণ
 
» আপনার মতামত পাঠান
» আর্কাইভ থেকে পড়ুন
 
» সুন্নতি সামগ্রী
» কবিতা
» সবুজ বাংলা ব্লগ

 
মুজাদ্দিদে আ’যম হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম-উনার ক্বওল শরীফ
মহান আল্লাহ পাক তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘কোনো মু’মিন ও মু’মিনা উনাদের জন্য জায়িয হবে না যে, মহান আল্লাহ পাক উনার ও উনার রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনারা যে ফায়ছালা মুবারক দিয়েছেন সে ফায়ছালা মুবারক উনার বিপরীত মত পেশ করা। যে বিপরীত মত পেশ করবে সে প্রকাশ্য গুমরাহে গুমরাহ হবে।’ নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘তোমরা চাঁদ দেখে পবিত্র রোযা শুরু করো এবং চাঁদ দেখে পবিত্র ঈদ করো।’ সারাবিশ্বে একদিনে পবিত্র ঈদ পালন করা বাস্তবে কখনো সম্ভব নয়। আগামী ২৯ ছানী ১৩৮২ শামসী সন, ২৮ জুলাই ২০১৪ ঈসায়ী সন, ইয়ামুল ইছনাইনিল আযীম বা সোমবার শরীফ পৃথিবীর পূর্বে নিউজিল্যান্ড থেকে পবিত্র শাওওয়াল শরীফ মাস উনার চাঁদ দেখা যাওয়ার সম্ভাবনা থাকলেও পৃথিবীর উত্তরে এশিয়ায় অনেক দেশসহ সমগ্র ইউরোপে চাঁদ দৃশ্যমান হবে তার পরের দিন। ভৌগোলিক কারণেই সারাবিশ্বে কখনো একদিনে পবিত্র ঈদ পালন সম্ভব নয় এবং তা পালনও জরুরী নয়।
সম্পাদকীয়
সমস্ত প্রশংসা মুবারক খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার জন্য; যিনি সকল সার্বভৌম ক্ষমতার মালিক। সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নবী আলাইহিমুস সালাম উনাদের নবী, রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদের রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার প্রতি অফুরন্ত দুরূদ শরীফ ও সালাম মুবারক।
পবিত্র ঈদ উনাকে সামনে রেখে বেড়ে গেছে ব্যাপক চাঁদাবাজি। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী পালন করছে নীরব ভূমিকা। সড়ক থেকে মহাসড়ক-ফুটপাত, মার্কেট থেকে বাসাবাড়ি, কাঁচাবাজার, লঞ্চঘাট, ফেরিঘাট, বাস টার্মিনাল সর্বত্রই এখন বেপরোয়া চাঁদাবাজরা। পাড়ার ছিঁচকে সন্ত্রাসী থেকে শুরু করে কোথাও-কোথাও চাঁদাবাজিতে নাম ভাঙানো হচ্ছে শীর্ষ সন্ত্রাসীদের। পিছিয়ে নেই পুলিশ এবং পলিটিক্যাল ক্যাডাররাও। ব্যবসায়ী মহলে চিরকুট আর ঈদ-সালামিতে চলছে এসব চাঁদাবাজি।
বেশিরভাগ সময় দেয়া হচ্ছে হুমকি। হয় চাঁদা, নইলে মৃত্যু। কারও কারও কছে কাফনের কাপড়ও পাঠানো হচ্ছে। মেরে মেলার হুমকি দেয়া হচ্ছে স্ত্রী-সন্তানদের। এমন হুমকিতে কেউ কেউ গোপন সমঝোতায় সন্ত্রাসীদের হাতে নগদ অর্থ তুলেও দিচ্ছে।
পবিত্র বরকতময় ঈদ উৎসব এলেই দুষ্কৃতিকারীরা উনার সম্মান রক্ষা না করে চাঁদাবাজির মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। মূলত বিদেশে পালিয়ে থাকা সন্ত্রাসীদের নামে আদায় করা হয় চাঁদা। প্রথমে টার্গেটকৃত ব্যক্তির মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে চাঁদাবাজ সন্ত্রাসীরা। পরে ওই ব্যক্তির স্ত্রী-সন্তানেরা কোথায় যাতায়াত করে বা কে কোন্ স্কুলে পড়ে সেই তথ্য সংগ্রহ করে। পরে ফোন দেয়া হয় টার্গেটকৃত ব্যক্তিকে। বলা হয়, চাঁদা না দিলে স্ত্রী-সন্তানদের গুলি করা হবে। ভয়ে অনেকেই গোপনে সন্ত্রাসীদের হাতে চাঁদার টাকা তুলে দেয়। যে যেভাবে পারে সমঝোতা করে পরিমাণটা কমিয়ে নেয়। জানা গেছে, চাঁদাবাজের তালিকায় বিদেশে পালিয়ে থাকা শীর্ষ সন্ত্রাসীদের পাশাপাশি কারাবন্দি সন্ত্রাসীরাও রয়েছে। তাদের নাম ব্যবহার করে চাঁদা আদায় করে সহযোগীরা। এলাকা ভাগ করে আদায় করা হয় চাঁদা।
পবিত্র ও মহাসম্মানিত ঈদ উনাকে কেন্দ্র করে চাঁদাবাজির মচ্ছবে সন্ত্রাসীদের পাশাপাশি মেতে উঠেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর এক শ্রেণীর অসৎ সদস্যরাও। থানা পুলিশ থেকে শুরু করে ট্রাফিক ও হাইওয়ে পুলিশ বেপরোয়া চাঁদাবাজি করছে। সূত্র জানায়, রাজধানীসহ এর আশপাশের এলাকার থানায় এখন প্রতিদিনই সাধারণ মানুষকে ধরে এনে হয়রানি করা হচ্ছে। ভয় দেখানো হয় পেন্ডিং মামলায় ঢুকিয়ে দেয়ার। পরে মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে দফারফা করে ছেড়ে দেয়া হচ্ছে। বিশেষ করে অবৈধ ব্যবসা বা কার্যকলাপের সঙ্গে যারা যুক্ত তারাই এখন প্রধান টার্গেট পুলিশের। এছাড়া পরিবহন ব্যবসায়ী ও ব্যক্তিগত গাড়ির চালক ও মালিকরা জানিয়েছে, রাস্তায় ট্রাফিক পুলিশ কারণে-অকারণে গাড়ি আটক করছে। কাগজপত্র ঠিক থাকলেও ‘ঈদ বখশিশ’ নামে চাঁদা দাবি করা হচ্ছে। চাহিদামতো টাকা না দিলেই রেকারিং করাসহ বিভিন্ন মামলা দেয়ার ভয় দেখানো হয়। মহাসড়কগুলোতে দায়িত্বরত ট্রাফিক ও হাইওয়ে পুলিশ আরো এক ধাপ এগিয়ে। পবিত্র ঈদ উপলক্ষে তাদের চাহিদার পরিমাণও বেশি। একাধিক পরিবহন ব্যবসায়ী জানিয়েছে, প্রত্যেক ঈদেই এই চিত্র দেখা যায়। পুলিশ বা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করে বা অভিযোগ করেও কোনো সুফল পাওয়া যায় না।
সন্ত্রাসী ও পুলিশের পাশাপাশি পবিত্র ঈদ উনাকে কেন্দ্র করে চাঁদাবাজিতে মেতে উঠে রাজনৈতিক ক্যাডাররা। স্থানীয় রাজনৈতিক নেতার নামে চাঁদা তোলে তারা। পরে ভাগবাটোয়ারা করে নেয় সবাই।
চাঁদাবাজিকে অপরাধীরা কোনো অপরাধ বলে মনে করছে না। তাই রাখঢাক না করেই তারা চাঁদা নিচ্ছে।
সারা দেশের মহাসড়কে চাঁদাবাজির শতাধিক ঘাট বা পয়েন্ট রয়েছে। স্থানীয় রাজনৈতিক ও বাস-ট্রাকের বিভিন্ন শ্রমিক ইউনিয়নের নেতাদের যোগসাজশে হাইওয়ে পুলিশের অসৎ কর্মকর্তারা এসব ঘাট নিয়ন্ত্রণ করছে। চাঁদা না দিলে সারা রাত রাস্তায় দাঁড় করিয়ে রাখা হয়, মামলার ভয় দেখানো হয়। এছাড়াও বিভিন্নভাবে চালকদের হয়রানি করা হয়। পরিবহন নিয়ে সারা দেশের মানুষের একদিকে চলছে ভোগান্তি আর অন্যদিকে চলছে চাঁদাবাজির নামে লুটপাট।
এর বিরূপ প্রভাব পড়ছে দেশের সব শ্রেণী-পেশার মানুষের উপর। কারণ এর প্রভাব পড়ে বাজারে। ফলে পণ্যের মূল্যবৃদ্ধি ঘটে। যার নেপথ্যে অন্যতম একটি কারণ চাঁদাবাজি। কিন্তু সরকার ভোক্তাদের স্বার্থে চাঁদবাজি বন্ধে কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না। অথচ সরকারের কর্তাব্যক্তিরা পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি ঠেকানোর মধুময় প্রতিশ্রুতি বিভিন্ন সময় আমাদের শোনায়। আমাদের প্রশ্ন- তাহলে আমরা কি চাঁদাবাজদের কাছে জিম্মি হয়ে থাকবো?
দেশের বেশিরভাগ মহাসড়কে প্রতি ১৫ থেকে ২০ কিলোমিটারে পুলিশকে ১০০ থেকে ২০০ টাকা চাঁদা দিতে হয়। শুধু ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম যেতেই কমপক্ষে ১৫টি পয়েন্টে চাঁদা দিতে হয়। টাকা না দিলে বিভিন্ন মামলায় ফাঁসিয়ে দেয়া হয়। আমরা মনে করি, চাঁদাবাজির নামে নৈরাজ্য বন্ধ করতে হবে। অপরাধী যেই হোক না কেন ছাড় দেয়া চলবে না। চাঁদাবাজি বন্ধে সরকারকে দ্রুত উদ্যোগ নিতে হবে।
বস্তুত চাঁদাবাজির দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত পুরো দেশ। প্রকৃতপক্ষে সমাজে একশ্রেণীর লুম্পেন গজিয়ে উঠেছে, যারা কোনো উৎপাদন প্রক্রিয়া বা কৃষি-ব্যবসা-চাকরির সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত নয়। তারাই চাঁদাবাজিকে তাদের জীবিকা নির্বাহ ও ভোগবিলাসের একমাত্র মাধ্যম হিসেবে গ্রহণ করেছে।
কাজেই এসব চাঁদাবাজি দূর করতে হলে আর্থসামাজিক ন্যায়বিচার প্রথম শর্ত। তা করার পূর্বে আইন ও পুলিশ দিয়ে সরকার কোনোদিন পরিস্থিতি উত্তরণ করতে পারবে না। সরকারকে এজন্য পবিত্র দ্বীন ইসলাম উনার মুখাপেক্ষী হতে হবেই হবে।
মূলত, এসব দায়িত্ববোধ আসে সম্মানিত ইসলামী অনুভূতি ও প্রজ্ঞা থেকে। আর তার জন্য চাই নেক ছোহবত তথা ফয়েজ-তাওয়াজ্জুহ।
যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম, ইমামুল আইম্মাহ, কুতুবুল আলম, আওলাদে রসূল, রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার মুবারক ছোহবত মুবারক লাভেই কেবলমাত্র সে মহান ও অমূল্য নিয়ামত হাছিল সম্ভব। মহান আল্লাহ পাক তিনি আমাদেরকে তা নছীব করুন। (আমীন)
বিশেষ প্রতিবেদন
ভারতের কাছে বিনা শুল্কে ইট রফতানির আইটেমটি কিভাবে অন্তর্ভুক্ত হলো তা এ দেশবাসী জানে না।
দেশের বিভিন্ন সীমান্ত পথ দিয়ে বৈধ ও অবৈধভাবে প্রতিদিন প্রায় এক কোটি ইট যাচ্ছে ভারতে। আর তা ভুটানে উচ্চমূল্যে পুনঃরফতানি করছে ভারত।
ইট রফতানি এবং ভারতীয় ভূখ-ে বর্ডারসংলগ্ন এলাকায় স্থাপিত ইটভাটাসমূহে ইট তৈরির জন্য বাংলাদেশের কৃষিজমির মূল্যবান উর্বর মাটি ও বালি পাচার ও রফতানি দেশপ্রেমিক কোনোও নাগরিক মেনে নিতে পারে না।
ফিরে দেখা ইতিহাস : ঘাতক রাজাকার, আল-বাদর মওদুদী জামাতী, দেওবন্দী খারিজী, ওহাবী সালাফীদের দিনলিপি : ২২ জুলাই, ১৯৭১ ঈসায়ী
একাত্তরের নিষ্ঠুর যমদূত আল-বাদর-৩৭
মুতাযেলা ফিরক্বার সমর্থক সন্ত্রাসবাদী দল হিযবুত তাহরীর থেকে সাবধান-১
দেশের খবর
মদীনা শরীফে ব্যস্ত সময় পার করছে খালেদা -তারেক
রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ ৩৩ হাজার ২০০ মিলিয়ন ডলার
মক্কা শরীফে ইবাদত নয়, ষড়যন্ত্র করছে তারা -ইনু
সাড়ে ৯ হাজার বার্মিজ ইয়াবা আটক
ঘুষ নেয়ার অভিযোগে ইউজিসির কর্মকর্তা বরখাস্ত
বঙ্গোপসাগরে নিখোঁজ রয়েছে ৪৬ জেলে
ডেঙ্গু প্রতিষেধক টিকা তৈরিতে সাফল্য
বগুড়ায় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের খাতাসহ আটক ৩
২ লাখ পিস ভারতীয় নেশা ট্যাবলেট উদ্ধার
কাতার থেকে সার আমদানি করবে বাংলাদেশ
ভেজাল খাবার বিক্রি:
৩৮ প্রতিষ্ঠানকে আড়াই লাখ টাকা জরিমানা
মিষ্টি কুমড়ার উন্নত জাত উদ্ভাবন
প্রশাসনে রদবদল
হাজার কোটি টাকা বাড়িয়ে নতুন কৃষি নীতিমালা ঘোষণা
বিআরটিসি’র ভলভো বাস উধাও
রমনা মন্দিরে হিযবুত তাহরীর গোপন বৈঠক!
সওজের সাবেক প্রধান প্রকৌশলীর ছেলের বিরুদ্ধে মামলা করবে দুদক
স্বর্ণ উদ্ধারের ঘটনায় ৩ জন ৭ দিনের রিমান্ডে
ছাত্রলীগ নেতা স্বামী-স্ত্রীর থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ
সিরাজগঞ্জে দু'পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১
বিএনপি চুপ করে বসে নেই -মঈন খান
বিচার বিভাগের শিরচ্ছেদ হলে গুম, খুন বাড়বে -গয়েশ্বর
এফবিসিসিআইয়ের অনুষ্ঠান বয়কট করলো সাংবাদিকরা
মিডিয়ার সমালোচনা করলেন আতিউর
আবারো খাম্বায়ন ভারাক্রান্ত বিদ্যুৎ!
ফরমালিন পরীক্ষার যন্ত্রও পরীক্ষার নির্দেশ
র‌্যাব বিলুপ্তের দাবিতে প্রধানমন্ত্রীকে এইচআরডব্লিউ’র চিঠি
এইচআরডব্লিউর বক্তব্য প্রত্যাখ্যান মন্ত্রীসভা কমিটির
ইসরায়েল’র বিরুদ্ধে বিশ্ববাসী রুখে দাড়াঁও
৩৫ সরকারি চাকরিজীবী মুক্তিযোদ্ধার সনদ বাতিল
শ্রমিক অসন্তোষ ঠেকাতে মন্ত্রিসভা কমিটির নির্দেশ
ভোগান্তিতে লঞ্চ যাত্রীরা
সুবহানের বিরুদ্ধে ২২তম সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ ৬ আগস্ট
ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে খানাখন্দ রয়েই গেছে
দেশের ৮০ ভাগ সড়ক ভালো -মন্ত্রীর দাবি
সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে দুই বাংলাদেশী আহত
অগ্রিম টিকিট বিক্রি:
কালোবাজারি সন্দেহে আটক ১৭
এ বছর হজ্জ পালনে যাচ্ছেন ১ লাখ ১ হাজার ৭৫৮ জন
শান্তিরক্ষা মিশনে ৭ হাজার ৮৩ জন সদস্য
Anjuman-e Al Baiyinaat, Sweden
বিদেশের খবর
মুজাদ্দিদে আ’যম মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার দোয়া ও রোবের প্রতিফলন মুসলমানগণকে যুলুম নির্যাতন করার ফলস্বরূপ যুলুমবাজ কাফিরদের উপর বন্যা, তুষারপাত, ঘূর্ণিঝড়, দাবানল, ভূমিকম্প প্রভৃতি প্রাকৃতিক দুর্যোগসহ বিভিন্ন প্রকার বিশৃঙ্খলা অস্বাভাবিক মৃত্যু এবং অর্থনৈতিক মন্দারূপে খোদায়ী গযব অব্যাহত The reflections and effects of the supplications and dominance of Mujaddide A’azwam Mamduh Hajrat Murshid Qibla Alaihis Salam! Divine retributions are continuing on the tyrant kaafir as an end result of the persecutions on Muslims, in the form of different kinds of chaos and confusion, unnatural deaths and severe economic recessions including natural disasters like flash floods, snowfalls, tornados, wild fires and earthquakes of unusual magnitude!
টাইফুনের আঘাত: ভিয়েতনামে নিহত ১১, ফিলিপাইনে র ৮৫ শতাংশ এলাকা বিদ্যুৎহীন
ভারতের উত্তরাখণ্ড জুড়ে বন্যা আতঙ্ক
কর্মী ছাঁটাইয়ের সাথে ‘নোকিয়া এক্স’ সিরিজও ছাঁটাই করল মাইক্রোসফট!
গাজার হাসপাতালে ইসরাইলি হামলা: মোট শহীদ ৫১৪
২২ ইসরাইলি সেনা নিহতের খবর নিশ্চিত করেছে তেল আবিব
সমর্থন দেয়ায় ওবামার প্রশংসায় নেতানিয়াহু
লুঠপাট চালাচ্ছে রুশপন্থী মদ্যপ বিদ্রোহীরাই
ব্যাঙ্গালোরে স্কুলছাত্রীকে সম্ভ্রমহরণের প্রতিবাদে বিক্ষোভ, পুলিশের লাঠিচার্জ
কবিতা






For the satisfaction of Mamduh Hazrat Murshid Qeebla Alaihis Salam
Site designed & developed by Muhammad Shohel Iqbal