অনুগ্রহ করে অপেক্ষা করুন...
 

যামানার লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ, যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, ইমামুল আ’ইম্মাহ, মুহইস সুন্নাহ, ক্বাইয়্যুমুয্ যামান, কুতুবুল আলম, হুজ্জাতুল ইসলাম, সুলত্বানুল আউলিয়া ওয়াল মাশায়িখ, ছাহিবু সুলত্বানিন নাছীর,
মাহিউল বিদয়াহ, রসূলে নুমা, গাউছুল আ’যম, সাইয়্যিদুল আউলিয়া, ইমামুল উমাম, সাইয়্যিদুল খুলাফা, আস সাফফাহ, হাবীবুল্লাহ্, আওলাদে রসূল, রাজারবাগ শরীফ-এর মুর্শিদ ক্বিবলাহ
The Daily Al Ihsan
বিশ্বের সমস্ত দেশ থেকে পঠিত আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত এর
আক্বীদায় প্রতিষ্ঠিত একমাত্র আন্তর্জাতিক ইসলামী পত্রিকা
Arabic .  বাংলা .  Urdu .  English .  Japanese .  Swedish
২৪ মাহে শাবান শরীফ, ১৪৩৭ হিজরী, ৩ আউয়াল, ১৩৮৪ শামসি
১ জুন, ২০১৬ ঈসায়ী সন, ১৮ জৈষ্ঠ, ১৪২৩ ফসলী সন
ইয়াওমুল আরবিয়ায়ি (বুধবার)
al-ihsan al-ihsan al-ihsan
al-ihsan
মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার দোয়ার বরকতে মুসলমানদেরকে জুলুম নির্যাতন করার ফলে জুলুমবাজ কাফিরদের উপর খোদায়ী গজব
  • <font class='SlideCaptionBN'>ভারতের মহারাষ্ট্রে দেশটির সবচেয়ে বড় অস্ত্র গুদামে অগ্নিকাণ্ডে সেনাবাহিনীর ২০ সদস্য নিহত হয়েছে। </font>
  • <font class='SlideCaptionBN'>এ ঘটনার পর অস্ত্র গুদামের আশপাশের অন্তত ১ হাজার অধিবাসীকে সরিয়ে নেয়া হয়।</font>
  • <font class='SlideCaptionBN'>ভারতের মহারাষ্ট্রে দেশটির সবচেয়ে বড় অস্ত্র গুদামে অগ্নিকাণ্ডে সেনাবাহিনীর ২০ সদস্য নিহত হয়েছে। </font>
  • <font class='SlideCaptionBN'>এ ঘটনার পর অস্ত্র গুদামের আশপাশের অন্তত ১ হাজার অধিবাসীকে সরিয়ে নেয়া হয়।</font>
Al Baiyinaat : e Version Al Ihsan : e Version
সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ উপলক্ষে প্রকাশিত
পোষ্টার, স্ক্রিনসেভার, ওয়ালপেপার সমুহ ডাউনলোড করুন।
বিশ্বের সমস্ত দেশ ও শহর থেকে পঠিত
ইসলামী শরীয়ত সম্মত একমাত্র পত্রিকা
"দৈনিক আল ইহসান"

বিজ্ঞাপনের মুল্য তালিকা
নামাজের সময়সূচী
জেলা : ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকা
ওয়াক্তশুরুশেষ
সাহ্‌রীর শেষ সময়০৩:৪১
ফজর০৩:৪৬০৫:০৯
ইশরাক০৫:৩৩০৭:১২
চাশত্‌০৭:১৩১০:৫৭
জাওয়াল১১:৫৭যোহর নামায পড়ার পূর্ব পর্যন্ত
যোহর১১:৫৭০৪:৩৬
আছর০৪:৩৭০৬:২৫
মাগরিব০৬:৪৮০৮:০৮
আওয়াবীনবাদ মাগরিব০৮:০৮
ইশা০৮:০৯০৩:৪১
তাহাজ্জুদ১১:১৪০৩:৪১
আগামীকাল ফজর০৩:৪৬০৫:০৯
আগামীকাল সূর্যোদয়০৫:১০-
আজ সূর্যোদয়০৫:১০-
আজ সূর্যাস্ত০৬:৪৩-
সূত্র: গবেষণা কেন্দ্র- মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ, ঢাকা

 
Saieedul Aaiyad
Saieedul Aaiyad
Saieedul Aaiyad
RajarbagShareef.net
Radio 'Al-Hikmah'
Special Days in Islam
majlisu-ruiatil-hilal
International Voice Room
Noorun Alaa Noor
Donate for Daily Al Ihsan Shareef Donate for Daily Al Ihsan Shareef


» কোরআন শরীফের তরজমা ও তাফছির(তরজমায়ে মুজাদ্দিদে আজম)
» ফিক্বহুল হাদিস ওয়াল আছার
» আহ্‌লে সুন্নাত ওয়াল জামাতের আক্বীদা
» মারিফাতুছ ছাহাবা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুম
» আউলীয়া-ই-কিরাম রহমতুল্লাহী আলাইহিম
 
» আত-তাক্বউইমুশ শামসি
» ইসলামের বিশেষ দিন সমূহ
» আহ্‌কামু রমাদ্বানাল মুবারক
» আহ্‌কামুয্‌যাকাত
(যাকাতের হুকুম-আহ্‌কাম)
» বিষয় ভিত্তিক বিশেষ প্রবন্ধ
 
» মাসিক আল বাইয়্যিনাত
» ওয়াজ শরীফ
» ক্বাছীদা আনজুমান
» মক্ববুল মুনাজাত শরীফ
» প্রকাশিত কিতাব সমূহ
 
» ফতওয়া বিভাগ
» সুওয়াল জাওয়াব বিভাগ
» মাসের ফজিলত ও প্রাসঙ্গিক আলোচনা
 
» পত্রিকার মূল সংস্করণ
 
» আপনার মতামত পাঠান
» আর্কাইভ থেকে পড়ুন
 
» সুন্নতি সামগ্রী
» কবিতা

 
মুজাদ্দিদে আ’যম হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম-উনার ক্বওল শরীফ
নূরে মুজাস্সাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, ‘আমি বাদ্যযন্ত্র ও মূর্তি ধ্বংস করার জন্য প্রেরিত হয়েছি।’

পবিত্র ইসলামী শরীয়ত উনার দৃষ্টিতে সর্বপ্রকার ‘গান-বাজনা’ করা ও শোনা সম্পূর্ণরূপেই কাট্টা হারাম। হালাল বলা বা মনে করা কুফরী।

কাজেই যারা পবিত্র রজবুল হারাম মাস আসলেই গান-বাজনার আয়োজন করে এবং বলে থাকে যে, ‘সুলত্বানুল হিন্দ, গরীবে নেওয়াজ, হাবীবুল্লাহ হযরত খাজা ছাহেব রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি গান-বাজনা করেছেন’ (নাউযুবিল্লাহ!); তারা মূলত হারাম কাজ করে এবং উনার উপর চরম মিথ্যা তোহমত দেয়।

কেননা তারা কখনোই প্রমাণ করতে পারবে না যে, তিনি ‘গান-বাজনা’ করেছেন।

মূলত সুলত্বানুল হিন্দ, গরীবে নেওয়াজ, হাবীবুল্লাহ হযরত খাজা ছাহেব রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি আজীবন পবিত্র শরীয়ত উনার উপর পরিপূর্ণ ইস্তিকামত ছিলেন। সুবহানাল্লাহ!
ইসলামী শিক্ষা
সাইয়্যিদাতাল উমাম হযরত শাহ নাওয়াসী ক্বিবলাতাইন আলাইহিমাস সালাম উনারা হলেন সাইয়্যিদা শাবাবি আহলিল জান্নাহ হযরত ইমামুছ ছানী মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ও ইমামুছ ছালিছ মিন আহলি বাইতি রসূলিল্লাহি ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের ক্বায়িম-মাক্বাম! সুবহানাল্লাহ!
সুমহান পহেলা রমাদ্বান শরীফ: গাউছুল আ’যম, মুহিউদ্দীন, দস্তগীর সাইয়্যিদুনা হযরত বড়পীর ছাহেব রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি আজিমুশ শান পবিত্র বিলাদতী শান মুবারক প্রকাশ করেন।
পবিত্র রমাদ্বান শরীফ উনার মধ্যে পবিত্র সাহরী খাওয়ার মধ্যে ব্যক্তিগত ও দ্বীনী কল্যাণ উভয়টা নিহিত রয়েছে
পবিত্র কুরআন শরীফ তিলাওয়াতসহ দ্বীনি বা দুনিয়াবী যে কোনো কাজের বিনিময়ে উজরত বা পারিশ্রমিক গ্রহণ করা জায়িয
রাষ্ট্রদ্বীন ইসলামের দেশে পবিত্র রমযান শরীফে হারাম খেলাধুলা কেন?
৯৮ ভাগ মুসলমানের দেশে পবিত্র রমযান মাসে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা কেন?
যারা যাকাত দেয়না তাদের নামায কবুল হয় না
সম্পাদকীয়
সমস্ত প্রশংসা মুবারক খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনার জন্য; যিনি সকল সার্বভৌম ক্ষমতার মালিক। সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নবী আলাইহিমুস সালাম উনাদের নবী, রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদের রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার প্রতি অফুরন্ত পবিত্র দুরূদ শরীফ ও সালাম মুবারক। খাদ্যে স্বয়ং সম্পূর্ণ এবং উদ্বৃত্তের দেশ হওয়া স্বত্ত্বেও প্রতিবেশী ভারত থেকে চাল আমদানির অনুমতি দিচ্ছে সরকার। নিম্নমানের সস্তা ভারতীয় চাল আমদানির প্রভাবে ন্যায্যমূল্য না পাওয়ায় হাসি নেই ধানচাষীদের মুখে। ভারতীয় চাল আমদানিতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে আড়তদার ও চাল প্রস্তুতকারী চাতাল ব্যবসায়ীরাও। তাদের অভিযোগ, দেশে বর্তমানে উৎপাদিত ধান-চালের পর্যাপ্ত মজুদ থাকা সত্ত্বেও নিম্নমানের সস্তা ভারতীয় চালে সয়লাব হয়ে যাচ্ছে দেশীয় বাজার। এতে চাতাল ও আড়তে অবিক্রিত অবস্থায় পড়ে আছে হাজার হাজার মেট্রিক টন উন্নত ধান ও চাল। এ অবস্থাতে ক্রয়কৃত ধান থেকে চাল উৎপাদন করে বর্তমানে প্রতি কেজিতে চাতাল মালিকদের লোকসান গুনতে হচ্ছে ২ টাকা ১৫ পয়সা। অবিলম্বে ভারতীয় চাল আমদানি বন্ধের জন্য সরকারের কাছে দাবি জানিয়েছে চাষী, চাতাল মালিকসহ সংশ্লিষ্টরা। বাণিজ্যমন্ত্রীর তথ্যমতে, চলতি ২০১৫-২০১৬ অর্থবছরে দেশে চাল আমদানি করা হয়েছে এপ্রিল পর্যন্ত ৩ লাখ ৫৭ হাজার মেট্রিক টন। অথচ গত ১৭ মে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেছে, ‘চাহিদার উদ্বৃত্ত ও উন্নতমানের চাল নিয়মিত রফতানীর মতো কর্মসূচিতে যাচ্ছে সরকার। বাংলাদেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। সরকারের কাছে অতীতের ৩০ থেকে ৪০ লাখ মেট্রিক টন চাল উদ্বৃত্ত রয়েছে। এ চালগুলোই রফতানী করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।’ এখন প্রশ্ন হলো, চাল যদি রফতানীই করা হবে, তাহলে চাল আমদানির অনুমতি দেয়া হচ্ছে কেন? এমনিতেই সারাদেশে ধানের বাম্পার ফলন হওয়ার পরও কৃষকের মুখে হাসি নেই। সম্প্রতি সংবাদ শিরোনাম হয়েছে ‘এক মণ ধানে এক কেজি গরুর গোশত’, ‘এক কেজি ধানে একটা ইলিশ মাছ’। আগে ‘পানির দরে ধান’ এ ধরনের শিরোনাম দেখা গেলেও এখন তা অপ্রাসঙ্গিক। কারণ ধানের দাম বোতলজাত পানির চেয়েও কম। এই সংবাদগুলোর কৌতুকটাই আমাদের চোখে পড়ে, পেছনের কান্নাটা আমরা দেখতে পাই না। আর এই প্রবণতা শুধু এবারের নয়, প্রতিবছরই মৌসুমের শুরুতে ধান নিয়ে বিপাকে পড়ে কৃষকরা। বাংলাদেশ কৃষিপ্রধান দেশ। বাংলাদেশের অগ্রগতির, সাফল্যের বড় কৃতিত্ব কৃষকদের। তারা মাথার ঘাম পায়ে ফেলে ফসল ফলায় বলেই আমরা পেটপুরে খেয়ে বড় বড় বক্তৃতা দিতে পারি। মাঠের পর মাঠভর্তি ধানের ক্ষেতে সোনালি ঢেউ দেখে আমরা আপ্লুত হই। কিন্তু ভেবে দেখি না, এই সোনালি ঢেউ কৃষকের কতটা হাহাকার বয়ে বেড়ায়। বাংলাদেশে সবকিছুর দাম বাড়ে, খালি ধানের দাম কমে যায়। ধানের দাম আসলে খুব স্পর্শকাতর ইস্যু। ধানের দাম বেশি বেড়ে গেলে অস্থিরতা তৈরি হবে সারাদেশে। আর ধানের দাম কমে গেলে মরে যাবে কৃষক। এ এক অভেদ্য চক্র। এই ভারসাম্যটা ধরে রাখা খুব গুরুত্বপূর্ণ কিন্তু নিম্নমানের সস্তা ভারতীয় চাল আমদানির সুযোগ থাকায় কৃষকের পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে চাল ব্যবসায়ীরাও। ভারতীয় চালের প্রভাবে ব্যবসা মন্দা যাচ্ছে। এতে শ্রমিকদের বেতন দিতে না পারায় তারা অনেকে কাজে আসছে না। চাতালে হাজার হাজার মেট্রিক টন ধান ও চাল অবিক্রিত অবস্থায় পড়ে আছে। চাল আমদানি অব্যাহত থাকায় উৎপাদিত চালের ন্যায্যমূল্যও পাচ্ছে না ব্যবসায়ীরা। উল্লেখ্য, ২০১০-১১ অর্থবছরে চালের ঘাটতি না থাকা সত্ত্বেও একটি মহল ভারত থেকে ১৫ লাখ মেট্রিক টন চাল আমদানি করে। এর প্রভাবে ধানের দাম কমে যায়। পরের বছরগুলোতেও অপ্রয়োজনে ভারত থেকে চাল আমদানি অব্যাহত থেকেছে। ভারতীয় নিম্নমানের পশুখাদ্য তুল্য চাল আমদানির ভয়াবহ প্রভাব স্থানীয় ধান-চালের বাজারে লক্ষ্য করা গেছে। ভারতকে বাংলাদেশে উৎপাদিত ধান-চালের মূল্যে ধস নামাতে মূল্য ডাম্পিংয়ের আশ্রয় নেয়ার মতো হীন কাজ করতেও দেখা গেছে। বাংলাদেশের কৃষকদের ধান উৎপাদনে অনাগ্রহী করে তুলতে প্রয়োজন না থাকা সত্ত্বেও নিম্নমান ও মূল্যের ভারতীয় লাখ লাখ টন চাল বাংলাদেশে ঢুকানো হচ্ছেÑ এমন অভিমত কৃষি বিশেষজ্ঞদের অনেকেরই। দেশে উৎপাদন বাড়ার হারের ক্রমহ্রাসমানতা ইতোমধ্যেই লক্ষ্য করা যাচ্ছে। ভারতীয় চাল আমদানি বন্ধের কোনো উদ্যোগ দেখা যায় না। কৃষক উৎপাদিত ধানের ন্যায্যমূল্য না পাওয়া অত্যন্ত দুঃখজনক। এর চেয়েও দুঃখজনক এই যে, সরকারকে বিষয়টি নিয়ে তেমন ভাবিত হতে দেখা যায় না। সরকারের এ বিষয়ে উদাসীনতা রয়েছে, তা প্রমাণ করে যথাসময়ে ধান সংগ্রহ অভিযান শুরু না করা ও সরসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান না কেনায়। ধান সংগ্রহের কোন্ সময়টি সঠিক- তা সরকারের অজানা থাকার কথা নয়। কালক্ষেপণের ফলে কৃষকের ধান মহাজন-ফড়িয়ারা যেনতেন দরে কেনার সুযোগ নিবেÑ এটাও সরকারের অজানা থাকার কথা নয়। তাই কৃষক ও ব্যবসায়ীদের স্বার্থে আমদানি-রফতানী বাণিজ্যে নিয়ন্ত্রণের উপর সংশ্লিষ্ট দফতরের আরো বেশি নজর দেয়া উচিত। বিভিন্ন দেশে কোনো পণ্যের উৎপাদন বেশি হলে তারা বাইরের দেশ থেকে একটি সময় বেঁধে দিয়ে আমদানি বন্ধ করে দিয়ে রফতানীর উপর গুরুত্ব দেয়। আবার ওই পণ্যের ঘাটতি দেখা দিলে তখন আমদানি বন্ধের উপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়। বাংলাদেশেও এ বিষয়টির উপর গুরুত্ব দেয়া জরুরী। মূলত, সব সমস্যা সমাধানে চাই সদিচ্ছা ও সততা। এই সততা ও সদিচ্ছা আসে পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ অনন্তকালব্যাপী পালন করার ইলম, চেতনা ও জজবা থেকে। আর তার জন্য চাই নেক ছোহবত তথা মুবারক ফয়েয-তাওয়াজ্জুহ। যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, যামানার মুজাদ্দিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম আলাইহিস সালাম উনার নেক ছোহবত মুবারকেই কেবলমাত্র সে মহান ও অমূল্য নিয়ামত হাছিল সম্ভব। আর ইতিহাসে তিনিই সর্বপ্রথম দিচ্ছেন অনন্তকালব্যাপী পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন করার মহামহিম নিয়ামত মুবারক। সুবহানাল্লাহ! খালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি আমাদেরকে তা নছীব করুন। (আমীন)
দেশের খবর
পানির দরে ধান বিক্রিতে বাধ্য হচ্ছে কৃষক- সড়কে ধান ফেলে কৃষকদের অবরোধ
নতুন অর্থবছরের বাজেট বৃহস্পতিবার
দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ করে রোজায় স্বস্তি দিন: সরকারকে বিএনপি
রোজার আগেই বেড়েছে নিত্যপণ্যের দাম
ধান কেনা হবে সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে -খাদ্যমন্ত্রী
এবার বাজেট বরাদ্দে এক নম্বরে থাকছে পরিবহন খাত
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে নৌদস্যু বাহিনীর আত্মসমর্পণ
মাদকের ছোবলে হারাচ্ছে তারুণ্যের উদ্দীপনা
সুন্দরবনকে নিরাপদ স্থান দেখতে চাই -স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
তিন ভাইয়ের যুদ্ধাপরাধের রায় বুধবার
হয়রানিমুক্ত ও নিরাপদ নৌ-ভ্রমণ নিশ্চিত করতে তৎপর হতে হবে -শেখ হাসিনা
৩শ কোটি টাকার বাজেট অনুমোদন সংসদ সচিবালয়ের
আজ থেকে সিম নিবন্ধনে লাগবে টাকা
গঙ্গা ব্যারেজ নির্মাণের দাবি
পাবর্ত্যাঞ্চল, উত্তরবঙ্গসহ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে কাঁঠালের বাম্পার ফলন
একনেকে পল্লী বিদ্যুতায়নসহ ৬ প্রকল্প অনুমোদন
সরকারের লুটপাটের বিরুদ্ধে আন্দোলন করবে বিএনপি -নোমান
জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীদের সাক্ষাতকার- ‘আই অ্যাম জিপিএ-৫’
দুদকের ভেতরেই দুর্নীতি -চেয়ারম্যান
হয়রানি বন্ধে চূড়ান্ত হচ্ছে বেসরকারি চিকিৎসা সেবা আইন
৩ মাসেও পুনর্বাসনের চাল পায়নি জেলেরা
আসলাম চৌধুরীর ৭ দিনের রিমান্ড
অস্ট্রেলিয় এক প্রতিবেদনের দাবি- দেশের ১৫ লাখ মানুষ দাস জীবনযাপন করছে
উঠে যাচ্ছে ৫ম শ্রেণির সমাপনী পরীক্ষা
বিদ্যুৎ পাচ্ছে আরো ২৫ লাখ নতুন গ্রাহক
মোবাইল ফোনের কর হ্রাসের দাবি
বরগুনায় শিশু রবিউল হত্যায় মিরাজের ফাঁসির আদেশ
সাতক্ষীরার উন্নত জাতের আম বিদেশে রফতানীর সম্ভাবনাদ
দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে
নাটোরে ভেজাল গুড় তৈরির কারখানাকে সাড়ে ৩ লাখ টাকা জরিমানা
যশোরে বোমা তৈরির সরঞ্জামসহ গ্রেপ্তার ১
আশুলিয়ার ব্যাংক ডাকাতি মামলায় জেএমবি সদস্যসহ ৬ জনের ফাঁসি
বাংলাদেশে আবারো ফ্লাইট চালু করলো গালফ এয়ার
ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়াকে সাত মামলায় জামিন
আজ থেকে শুরু হচ্ছে নৌ নিরাপত্তা সপ্তাহ
Anjuman-e Al Baiyinaat, Sweden






For the satisfaction of Mamduh Hazrat Murshid Qeebla Alaihis Salam
Site designed & developed by Muhammad Shohel Iqbal